বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন, ১৪৩০, ১৭ শাবান, ১৪৪৫

রাজাকারের তালিকা প্রকাশ ২০২৪ সালের মার্চে

সারা দেশে রাজাকারের তালিকা ২০২৪ সালের মার্চে প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

শনিবার রাজশাহীর বাগমারায় নবনির্মিত মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স উদ্বোধনের শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

এর আগে উদ্বোধন উপলক্ষ্যে ভবানীগঞ্জ নিউ মার্কেটের সভাকক্ষে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন মন্ত্রী।

বাগমারাবাসীকে বাংলা ভাইয়ের সেই ভয়াবহ অত্যাচার ও নির্যাতনের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী বলেন, তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের এমপি-মন্ত্রীদের মদদেই বাংলা ভাই তথা জেএমবি ক্যাডাররা স্বাধীনতার সপক্ষের লোকজনকে হত্যা করে তারা এ অঞ্চলে একছত্রভাবে রাজত্ব কায়েম করার ষড়যন্ত্র করেছিল। আজ নিশ্চয় আপনারা সেই কথা ভুলে যাননি।

মন্ত্রী বলেন, বিএনপি-জামায়াত কখনই দেশের উন্নয়ন চায় না। তারা চায় শুধু স্বাধীনতার সপক্ষের শক্তি ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করে দিয়ে দেশের মানুষকে আবারো পাকিস্তানের গোলাম বানাতে। এ জন্য তারা দেশের ভেতরে ও বাইরে বিভিন্নভাবে ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। কাজেই এ ব্যাপারে আমাদের সবাইকেই আরো সচেতন ও সজাগ থাকতে হবে। পৃথিবীর কোনো অপশক্তিই যেন আমাদের স্বাধীনতার সপক্ষের শক্তি ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করে দিতে না পারে। এ জন্য আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে এবং সব ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এএফএম আবু সুফিয়ানের সভাপতিত্বে সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক, সংসদ সদস্য ডা. মুনছুর রহমান, উপজেলা চেয়ারম্যান অনিল কুমার সরকার, ভবানীগঞ্জ পৌর মেয়র আব্দুল মালেক, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার সুনিল কুমার কুন্ড, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট আফতাব উদ্দিন আবুল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আল মামুন, সোনাডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আজাহারুল হক, কাচারী কোয়ালীপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ ও মুক্তিযোদ্ধা মাষ্টার মকসেদ আলী প্রমুখ।