বুধবার, ২২ মে, ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১, ১৩ জিলকদ, ১৪৪৫

শরীয়তপুরে বসতঘর থেকে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার

লাশের গায়ে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

 

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলায় বসতঘর থেকে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে; পুলিশের ধারণা ওই নারীকে হত্যা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নাওডোবা ইউনিয়নের ছবদার মাদবরের কান্দি গ্রাম থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয় বলে জানিয়েছেন পদ্মা সেতু দক্ষিণ থানার ওসি শেখ মোস্তাফিজুর রহমান।

নিহত ৩৫ বছর বয়সী হাসিনা বেগম ওই গ্রামের সোবহান মাদবরের স্ত্রী।

স্থানীয় ইলিয়াস মাদবর জানান, হাসিনার স্বামী ঢাকার একটি বেসরকারি কোম্পানিতে চাকরি করেন। হাসিনা তার ছোট ছেলেকে নিয়ে গ্রামে থাকতেন।

স্থানীয়দের বরাতে এসআই জামাল বলেন, “ছোট ছেলে বেড়াতে যাওয়ায় সোমবার রাতে  বাড়িতে একাই ছিলেন হাসিনা। ধারণা করা হচ্ছে রাতের কোনো এক সময় তাকে নির্যাতন করে হত্যার পর পালিয়ে যায় দুবৃর্ত্তরা।

“সারাদিন তার ঘরের দরজা বন্ধ ও সাড়া শব্দ না পেয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় স্থানীয়রা তার ঘরে গিয়ে লাশ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেয়।”

বুধবার সকালে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

লাশের গায়ে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে জানিয়ে ওসি শেখ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, “প্রাথমিকভাবে গৃহবধূকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় আইগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”