বুধবার, ২৯ মে, ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১, ২০ জিলকদ, ১৪৪৫

জাজিরায় বিশেষ অভিযানে অবৈধ জাটকা উদ্ধার এবং আটক ৪

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার দুইটি যায়গায় বিশেষ অভিযানে অবৈধ জাটকা ইলিশ উদ্ধার করেছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো: কামরুল হাসান সোহেল এবং জাজিরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান এর নেতৃত্বে জাজিরা থানা পুলিশ। এসময় ৪ জনকে আটক করে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ১০ দিন করে জেল দেয়া হয়।

আটককৃতরা হলেন, জাজিরা উপজেলার সেনেরচর ইউনিয়নের মানিকনগর এলাকার বাদল শেখ এর ছেলে রাকিব শেখ(২২), একই এলাকার রব কাজীর ছেলে মো: রুবেল কাজী(৩৫), পূর্ব কাজী কান্দির আব্বাস কাজীর ছেলে এনামুল কাজী(২৩) এবং সেনেরচরের আরব আলী হাং এর ছেলে মিলন হাং(২৪)।

রবিবার বিকেলে ইফতারের পূর্ব মুহুর্তে জাজিরার কাজীর হাট বাজার এবং পালেরচর বাজারে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান এই জাটকা ইলিশ মাছ উদ্ধার করা হয়। আটককৃত জাটকার পরিমান প্রায় ৩ মন হবে বলে জানিয়েছেন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল বাশার।

আটককৃত জাটকা ইলিশ মাছগুলো জাজিরা থানায় নিয়ে আসা হয়। সেখান থেকে জাজিরা উপজেলার স্থানীয় বিভিন্ন এতিমখানা মাদরাসা গুলোতে মাদরাসার ছাত্রদের খাওয়ার জন্য বিতরণ করে দেয়া হয়। এছাড়া আটককৃতদের পরদিন জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

জাজিরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, আমরা দিনব্যাপী জাজিরা উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজারসহ সম্ভাব্য জায়গাগুলোতে অবৈধ জাটকা ইলিশ সম্পদ রক্ষায় অভিযান পরিচালনা করি। বিকেলে কাজীরহাট বাজারে প্রায় তিন মন জাটকা ইলিশসহ চারজনকে আটক করি এবং পালেরচর বাজার থেকে ৫ কেজি জাটকা ইলিশ জব্দ করি। এসময় জাটকা ইলিশ ফেলে বিক্রেতারা পালিয়ে যায়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো: কামরুল হাসান সোহেল জানান, আমরা জাটকা ইলিশ সম্পদ রক্ষা অভিযানের অংশ হিসেবে উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় অভিযান ও মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করি। রবিবার অভিযানে চারজনকে ১০ দিন করে কারাদন্ড প্রদান করা হয় এবং বিপুল পরিমানে জাটকা ইলিশ জব্দ করে স্থানীয় মাদরাসাগুলোতে বিতরণ করা হয়।