বুধবার, ২৯ মে, ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১, ২০ জিলকদ, ১৪৪৫

শরীয়তপুর-চাঁদপুর আঞ্চলিক মহাসড়ক প্রাথমিক সংস্কারের জন্য ৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ

পবিত্র ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে শরীয়তপুর-চাঁদপুর মহাসড়ক সংস্কারের জন্য ৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে ২৯ কোটি টাকা টেন্ডার হয়েছে। আগামী সপ্তাহে বাকি ২১ কোটি টাকা টেন্ডার হবে। বৃহস্পতিবার (৩০ মার্চ) রাতে সড়ক ও জনপদ বিভাগের গোপালগঞ্জ জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. সাদেকুল ইসলাম সাক্ষরিত এক পত্রে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে। বুধবার থেকে সংস্কার কাজের টেন্ডার কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। যা এফ প্যাকেজে ওই সড়কের কাজ করা হবে বলেও জানান তিনি। এদিকে, ওই সড়কের সংস্কারের টেন্ডার হয়েছে এ খবরে শরীয়তপুরের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম এমপি’র প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।
জানাগেছে, পদ্মা সেতু হয়ে সর্ব প্রথম ফোরলেন রাস্তাটি করার উদ্যোগ নেন পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম এমপি। দীর্ঘদিন ধরে সংস্কারের অভাবে শরীয়তপুর-চাঁদপুর আঞ্চলিক মহাসড়কটি যানবাহন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। বর্তমানে সড়কটি ফোরলেনে উন্নতিকরণের কাজ চলছে।
আরও জানা গেছে, সচিবালয়ে গত ২৭ মার্চ পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মো. ইসহাককে নিয়ে এক জরুরী সভা করা হয়। ফোরলেন রাস্তা নির্মানে ভূমি অধিগ্রহণের কারণে সময় বেশি লাগায় জনদূর্ভোগে পড়তে হতে পারে ভেবেই উপমন্ত্রী শামীম শরীয়তপুর-চাঁদপুর মহাসড়ক প্রাথমিক সংস্কারের জন্য জরুরী বরাদ্দের জন্য ডিও লেটার দেন।পানি সম্পদ উপমন্ত্রী’র ডিও লেটারের বিপরীতে এ বরাদ্দ অনুমোদন করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে শরীয়তপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগ। দ্রুততার সাথে রাস্তাটি সংস্কার করা হলে ফোরলেন রাস্তার সুফল পাবে এই অঞ্চলের মানুষ।