বুধবার, ২৯ মে, ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১, ২০ জিলকদ, ১৪৪৫

শরীয়তপুর কারাগারে মারা গেলেন ভারতীয় নাগরিক

 

পদ্মা সেতুর জাজিরা প্রান্ত থেকে আটক এক ভারতীয় নাগরিক শরীয়তপুর কারাগারে মারা গেছেন।

শনিবার রাতে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ওই বন্দি মারা যান বলে জানান জেলা কারাগারের সাব-জেলার রাকিব শেখ।

মৃত বন্দি বাবুল সিং (৩৮) ভারতীয় নাগরিক। তাকে গত বছরের ১৭ মে পদ্মা সেতুর জাজিরা প্রান্তের টোল প্লাজা এলাকা থেকে সেনাবাহিনী আটক করে।

এর আগে ১৮ জানুয়ারি জেলা কারাগারে সতেন্দ্র কুমার (৪০) নামের আরেক ভারতীয় নাগরিকের মৃত্যু হয়েছিল। এ নিয়ে দুজনের মৃত্যু হলো।

সাব-জেলার বলেন, “শরীয়তপুরের বিভিন্ন থানায় করা অনুপ্রবেশ মামলায় ২২ ভারতীয় নাগরিক জেলা কারাগারে বন্দি আছেন। তাদের মধ্যে বাবুল সিং একজন। এর আগে জানুয়ারিতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ফরিদপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে ঢাকায় নেওয়া হয়। চিকিৎসা শেষে মার্চ মাসে তাকে আবার শরীয়তপুর জেলা কারাগারে ফেরত পাঠানো হয়।”

তিনি আরও বলেন, “শনিবার রাতে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়; সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।”

রোববার সদর হাসপাতালের মর্গে মরদেহের ময়নাতদন্ত করা হয়েছে।

শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) সুমন কুমার পোদ্দার বলেন, “হাসাপাতালে আনার পর ওই বন্দির হাতে পালস পাওয়া যাচ্ছিল না। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।”

জেল সুপারের দায়িত্বে থাকা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী হাকিম আব্দুর রহিম বলেন, “কারাগারে বন্দি এক ভারতীয় নাগরিকের মৃত্যুর খবরটি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে কারা শাখায় চিঠি দিয়ে জানানো হয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে যে নির্দেশনা আসবে, সে অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”