বুধবার, ২৯ মে, ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১, ২০ জিলকদ, ১৪৪৫

ইমরান খান গ্রেফতার, জ্বলছে পাকিস্তান

 

পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে গ্রেফতার করেছে নিরাপত্তা বাহিনী। মঙ্গলবার ইসলামাবাদ হাইকোর্টে তার বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া একাধিক মামলায় জামিন চাইতে গেলে সেখান থেকেই তাকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে গ্রেফতারের পরপরই সারা দেশে পিটিআই সমর্থকরা বিক্ষোভে ফেটে পড়েন। বিভিন্ন স্থানে পুলিশের সঙ্গে নেতাকর্মীদের সংঘর্ষে একজন নিহত এবং কমপক্ষে ১২ জনের আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ক্ষুব্ধ নেতাকর্মী-সমর্থকরা রাওয়ালপিন্ডির সেনা দপ্তর এবং লাহোর সেনানিবাসের অফিসার্স কোয়ার্টারেও হামলা চালায়। এদিকে ইমরানের গ্রেফতার প্রক্রিয়াকে বৈধ বলে ঘোষণা দিয়েছেন ইসলামাবাদ হাইকোর্ট। বুধবার তাকে আদালতে উপস্থাপন করে রিমান্ডের আবেদন করা হবে। বিবিসি, দ্য ডন, জিও নিউজ, এক্সপ্রেস ট্রিবিউন, দ্য নিউজ।

এক টুইট বার্তায় ইসলামাবাদ পুলিশ জানায়, আল কাদির ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ইমরান খানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পিটিআই নেতা ফাওয়াদ চৌধুরীও এক টুইট বার্তায় এ খবর নিশ্চিত করেছেন। এদিকে, গ্রেফতার করার সময় পিটিআই চেয়ারম্যান ইমরান খানের মাথা ও পায়ে আঘাত করার অভিযোগ উঠেছে। বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, ইসলামাবাদ হাইকোর্টের (আইএইচসি) গেটে ইমরান খান প্রবেশ করার কিছুক্ষণ পরই আধা সামরিক বাহিনী এবং সাঁজোয়া বহর সেখানে প্রবেশ করে। এরপর প্রবেশপথ অবরুদ্ধ করে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর একটি কালো রঙের ভিগো গাড়িতে তাকে তুলে নেওয়া হয়। তবে তাকে কোথায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে, তাৎক্ষণিক কেউ তা জানাতে পারেননি। এ সময় আদালত চত্বরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

পাকিস্তানের উর্দু দৈনিক মুসাফাত লাহোরের সাংবাদিক সগীর আহমেদ কামার  জানান, বুধবার ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টেবিলি ব্যুরোর (ন্যাব) ইসলামাবাদ আদালতে ইমরান খানকে হাজির করা হবে। সেখানে তার ১৪ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানানো হবে। মঙ্গলবার হাইকোর্টের শুনানিতে এ কথা জানিয়েছেন ন্যাবের ডেপুটি চেয়ারম্যান হুসাইন আজগর। সগীর আহমেদ আরও জানান, এ মামলায় ইমরান খানে শিগগিরই জামিন পাবার তেমন কোনো সম্ভাবনা নেই।

ইমরান খানকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে সন্ধ্যার পর গোটা পাকিস্তানে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে। পিটিআই কর্মীরা ইসলামাবাদ, রাওয়ালপিন্ডি, লাহোর, করাচি, গুজরানওয়ালা, ফয়সালাবাদ, মুলতান, পেশাওয়ার ও মারদানে বিক্ষোভ করছেন।

ডন জানিয়েছে, লাহোর ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় সামরিক কর্মকর্তাদের বাসভবনে পিটিআই সমর্থকরা ঢুকে পড়েন। ডন পত্রিকার অনলাইনে শেয়ার করা সাংবাদিক আসাদ আলী তুরের টুইটার ভিডিও পোস্টে দেখা যায়-মুখে রুমাল বেঁধে লাঠিসোঁটা নিয়ে রাওয়ালপিন্ডির সেনা দপ্তরের সামনে জড়ো হতে থাকেন পিটিআই নেতাকর্মী ও সমর্থকরা। এর কিছুক্ষণ পরই একজন দুজন করে সেনা দপ্তরের প্রধান ফটকের দিকে এগিয়ে যেতে থাকেন। একপক্ষ প্রধান গেট ভেঙে ভেতরে ঢুকে যায়। আরেক পক্ষ প্রধান গেটের ঠিক মাঝখানে অবস্থিত সেনাবাহিনীর গৌরবোজ্জ্বল প্রতীক ভেঙে ফেলে। সব মিলিয়ে ১ মিনিটেরও কম সময়ের মধ্যে সেনানিবাসের ভেতরে ঢুকতে দেখা যায় দুঃসাহসী পিটিআই বিক্ষোভকারীদের।

এর প্রায় ঘণ্টা দেড়েক আগে লাহোর সেনানিবাসের অফিসার কোয়ার্টারেও ভাঙচুর চালান পিটিআই সমর্থকরা। সাংবাদিক মুর্তজা আলি শাহের ভেরিফাইড টুইটার অ্যাকাউন্টে শেয়ার করা ভিডিওতে ভাঙচুর চালানোর দৃশ্য দেখা যায়। টুইটারে ভিডিও শেয়ার করে তিনি বলেন, ‘পিটিআই সমর্থকরা লাহোর ক্যান্টনমেন্টে সামরিক অফিসারের বাড়িতে ভাঙচুর করেছেন।’ ভিডিওতে দেখা যায়, আংশিকভাবে মুখ ঢেকে রাখা একদল লাঠিসোঁটা নিয়ে গেট প্রাঙ্গণে প্রবেশ করছেন। পরে দেওয়ালে তাদের আঘাত করতে দেখা যায়। ভিডিওতে সেনা কমান্ডারের বাড়ির ভেতর থেকে আসবাবপত্র বের করে পুড়িয়ে দেওয়ার দৃশ্যও দেখা যায়।

পেশোয়ারে সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদর দপ্তরের বাইরেও ব্যাপক বিক্ষোভ হয়েছে। খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের পিটিআই কর্মীরা লাক্কি মারওয়াত জেলায় রাস্তায় নেমেছেন। করাচিতে নার্সারি এলাকার কাছে পিটিআই কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। পুলিশকে লক্ষ্য করে বিক্ষোভকারীরা পাথর ছোড়েন এবং রাস্তার বাতি ভেঙে ফেলেন। পুলিশ বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

রাতে ইসলামাবাদ পুলিশ জানায়, রাজধানীতে বিক্ষোভকারীদের হামলায় পুলিশের পাঁচ সদস্য আহত হয়েছেন। এ সময় ৪৩ বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করা হয়।

এদিকে ইমরান খানকে কেন গ্রেফতার করা হলো, তা জানাতে হাইকোর্ট ইসলামাবাদ পুলিশ প্রধান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং অ্যাটর্নি জেনারেলকে নির্দেশ দিয়েছেন।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ বলেছেন, আদালতে বারবার হাজির হওয়ার সমন জারির পরও ইমরান খান হাজিরা দিতে ব্যর্থ হন। এ কারণে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। একটি রিয়েল এস্টেট কোম্পানি থেকে ইমরান খান ও তার স্ত্রী পাঁচ হাজার কোটি রুপি ঘুস নেওয়ার অভিযোগে দুর্নীতি মামলাটি করা হয়। দেশটির দুর্নীতিবিরোধী সংস্থা ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টিবিলিটি ব্যুরো মামলাটি করে।

ইসলামাবাদে ১৪৪ ধারা জারি : ইসলামাবাদ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল ড. আকবর নাসির খান জানান, আল কাদির ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আইএইচসি চত্বর থেকে ইমরান খানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শহরের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। কেউ আইন লঙ্ঘন করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পুলিশ প্রধান হুঁশিয়ারি দিয়ে আরও বলেন, ইসলামাবাদের পরিস্থিতি স্বাভাবিক। তবে শহরে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। যারা নিয়ম ভঙ্গ করবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে নির্যাতনের অভিযোগ পিটিআই নেতারা করলেও পুলিশ তা অস্বীকার করেছে। এক টুইট বার্তায় পিটিআই নেতা ফাওয়াদ চৌধুরী জানান, কথিত দুর্নীতি মামলার শুনানিতে আদালতে হাজিরা দিতে যাওয়ার পর ইমরান খানের গাড়িবহর আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ঘিরে ধরে। এরপর তাকে গ্রেফতার করে অজানা স্থানে নিয়ে গেছে। গ্রেফতারের সময় ইমরান খানের মাথা ও পায়ে আঘাত করা হয়েছে। এদিকে, রাজনৈতিকভাবে হয়রানি করতেই পিটিআইয়ের প্রধানকে আটক করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন দলের সদস্য শাফকাত মাহমুদ।

গত বছর এপ্রিলে পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদের অনাস্থা ভোটের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে ইমরান খান বরখাস্ত হন। এরপর থেকে তিনি আগাম নির্বাচনের জন্য প্রচারণা চালাচ্ছিলেন। সাবেক ক্রিকেট কিংবদন্তি ইমরান ক্ষমতা থেকে অপসারণের পর দেশব্যাপী বিক্ষোভের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন। তার বিরুদ্ধে শতাধিক মামলা করা হয়েছে।
এদিকে নিজের অনুপস্থিতিতে পিটিআই কীভাবে চলবে, সেই দিকনির্দেশনা আগেই দিয়ে রেখেছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এজন্য তিনি আগেই দলের একটি কমিটি গঠন করেন। ওই কমিটি তার দল পরিচালনা করবে। এর আগে বিবিসিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ৭০ বছর বয়সি ইমরান বলেছিলেন, আমি একটি কমিটি করেছি। আমি কারাগারে থাকলে ওই কমিটি দলীয় সিদ্ধান্ত নেবে।

শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভের আহ্বান কুরেশির : পিটিআই ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মাহমুদ কুরেশি দলের নেতাকর্মীদের শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ করার আহ্বান জানিয়েছেন। দলের টুইটার অ্যাকাউন্টে প্রকাশিত একটি ভিডিওতে ইমরান খানের প্রতি সংহতি জানাতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানান তিনি। তিনি ইসলামাবাদ যাচ্ছেন। সেখানে দলের নেতাদের এক বৈঠকে তিনি যোগ দেবেন। ছয় সদস্যের একটি কমিটি পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করবে।

গ্রেফতার হওয়ার আগে ইমরান খানের ভিডিও বার্তা : ইসলামাবাদ হাইকোর্ট চত্বর থেকে গ্রেফতার হওয়ার আগে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ভিডিও বার্তা দিয়েছেন। পাকিস্তানের সাংবাদিক এহতেশাম উল হক তার টুইটার থেকে তার ভিডিও বার্তা প্রকাশ করেছেন। কর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশে দেওয়া ভিডিও বার্তায় পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খান বলেন, ‘যতক্ষণে আমার কথা আপনাদের কাছে পৌঁছবে তার আগে মিথ্যা মামলায় আমাকে বন্দি করা হবে। পাকিস্তানে আমাদের মৌলিক ও আইনি অধিকারের দাফন হয়ে গেছে। এরপর হয়তো আপনাদের সঙ্গে আমার কথা বলার সুযোগ হবে না। তাই দু-তিনটি কথা বলতে চাই।’ ইমরান খান বলেন, ‘প্রথমত, পাকিস্তানের মানুষ আমাকে ৫০ বছর ধরে চেনে। আমি কখনোই পাকিস্তানের আইনের বিরুদ্ধে যাইনি বা নিয়ম ভাঙিনি। ক্ষমতায় যাওয়ার পর আমি যত লড়াই করেছি তা আইনের গণ্ডির ভেতরে থেকে করেছি। এখন যা হচ্ছে-আইন লঙ্ঘন করেছি বলে সেটা হচ্ছে না, এসব করা হচ্ছে যাতে আমি সত্যের পথ থেকে পিছু হটি। এ দুর্নীতিগ্রস্ত ও চোরের দল আমদানি করা (বিদেশি মদদে ক্ষমতায় আসা) সরকারকে যেন আমি মেনে নিই।’

২ মিনিট ২০ সেকেন্ডের ভিডিও বার্তার শেষে ইমরান খান বলেন, ‘আপনাদের সবার কাছে আমার আবেদন, ন্যায়ের জন্য লড়তে সবাই পথে নামুন। স্বাধীনতা কাউকে থালায় সাজিয়ে দেওয়া হয় না, এর জন্য লড়াই ও পরিশ্রম করতে হয়। এখন সময় এসেছে পথে নামার।’ ইমরান খান গ্রেফতার হওয়ার পর পিটিআই নেতারা রাস্তায় নেমে কর্মী-সমর্থকদের বিক্ষোভ করার ডাক দিয়েছেন। ইমরান গ্রেফতার হওয়ার পর করাচিতে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করছেন পিটিআইর কর্মী-সমর্থকরা।

বন্ধ মোবাইল ইন্টারনেট, বাতিল সিআইই পরীক্ষা : স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে মঙ্গলবার পাকিস্তান জুড়ে মোবাইল ইন্টারনেট সেবা স্থগিত করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে পাকিস্তানের টেলিযোগাযোগ কর্তৃপক্ষ। টুইটার, ফেসবুক ও ইউটিউবে প্রবেশেও বাধা দেওয়া হচ্ছে। কোনো কোনো অঞ্চলে ইন্টারনেট পরিষেবা সম্পূর্ণরূপে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ‘নেটব্লকস’।

পাকিস্তানে বুধবার ১০ মে ক্যামব্রিজ ইন্টারন্যাশনাল, পিয়ারসন ইউনিভার্সিটি অব লন্ডন এবং আইইএলটিএসের সব পরীক্ষা বাতিল করেছে ব্রিটিশ কাউন্সিল। টুইটারে এক বার্তায় তারা জানায়, ‘হঠাৎই দেশের পরিস্থিতি পালটে যাওয়ায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। আগামী ১১ ও ১২ মের পরীক্ষার বিষয়ে কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে তা আগামীকাল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে।’