বুধবার, ২২ মে, ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১, ১৩ জিলকদ, ১৪৪৫

ভেদেরগঞ্জে স্ত্রীর পরকীয়া প্রেমিকের হাতে প্রবাসী স্বামী খুন!

 

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর এলাকায় স্ত্রীর পরকীয়া প্রেমিকের হাতে প্রবাসী স্বামী আলা উদ্দিন (৩৮)কে খুন করার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল শনিবার রাত ৯টার দিকে ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর এলাকায় উত্তর তারাবুনিয়ার রশিদ মাঝির কান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আলাউদ্দিন রশিদ মাঝি কান্দি গ্রামের মফিজুল বেপারীর ছেলে। তবে নিহতের স্ত্রীর দাবি, স্থানীয় আব্দুল্লাহ তার গোপন ছবি নিয়ে তাকে বøাক- মেইল করে আসছিল। আমার স্বামী এ ঘটনার প্রতিবাদ করায় আব্দুল্লাহ আমার স্বামীকে খুন করেছে। এ ঘটনায় ২ জনকে আটক করা হয়েছে।
স্থানীয় ও নিহতের পাররিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত ১৬ ধরে দুবাইতে আলাউদ্দিন থাকতো । মাঝে মাঝে ছুটিতে দেশে আসতো। এর ফাকে স্ত্রী রুমা বেগম (২৮) এর সাথে একই গ্রামের ওবায়দুল মৃধার ছেলে আব্দুল্লাহ মৃধার সাথে রুমা বেগমের পরকীয়া সম্পর্ক চলছিল। এ নিয়ে একাধিক দরবার শালিশ হয়। বিষয়টি নিয়ে গতকাল রাত সাড়ে ৮টার দিকে আব্দুলাহ মৃধা সাথে আলাউদ্দিন এর কথা কাটাকাটি হয়। এ সময় আব্দুল্লাহ পাশের দোকান থেকে কেঁচি নিয়ে আলাউদ্দিনের গলায় আঘাত করে। এতে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। স্থানীয়রা মারাতœক আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আলাউদ্দিনকে মৃত ঘোষনা করেন। এ ঘটনায় আলাউদ্দিনের স্ত্রী রুমা বেগম ও পরোকিয়া প্রেমিক আবদুল্লাহ মৃধাকে আটক করা হয়েছে।
আলাউদ্দিন ব্যাপারীর স্ত্রী রুমা বেগম বলেন, দীর্ঘদিন ধরে আব্দুল্লাহ আমার একটি গোপন ছবি ফেসবুকে ভাইরাল করে দেওয়ার ভয় দেখাতো। সেই ছবিটি মোবাইলে পাঠালে আমার স্বামী আব্দুল্লাহর দোকানে গিয়েছিল প্রতিবাদ করতে। তারপর এ ঘটনা ঘটেছে।
আলাউদ্দিন ব্যাপারীর ছোট বোন তানজিলা আক্তার বলেন, আব্দুল্লাহ আর রুমা প্রেম করার বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর বিচার সালিশ হয়েছে। বিচারে আব্দুল্লাহকে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছিল এ সব বিষয়ে আর না আগাতে। আমার ভাইকে শেষ পর্যন্ত মেরেই ফেললো ওরা। এ ঘটনায় অভিযুক্তদের ফাঁসি চাই।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) আসাদুজ্জামান হাওলাদার বলেন, এখনো মামলা করা হয়নি, মামলার প্রস্তুতি চলছে। দুই জনকে আটক করা হয়েছে।