বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০২৪, ৩ শ্রাবণ, ১৪৩১, ১১ মহর্‌রম, ১৪৪৬

ভোররাতে ঘরে ঢুকে মা ও মেয়েকে কুপিয়ে টাকা-স্বর্ণালংকার লুট

 

শরীয়তপুরের নড়িয়ায় বসতঘরে ঢুকে মা-মেয়েকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করেছে এক দুর্বৃত্ত। পরে ওই দুর্বৃত্ত টাকা, স্বর্ণালংকার ও মুঠোফোন লুট করে নিয়ে যায়। শুক্রবার ভোরের দিকে উপজেলার কলারগাঁও গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

আহত ব্যক্তিরা হলেন রোকসানা বেগম (৩৫) ও তাঁর মেয়ে তানজিলা আক্তার (১৫)। রোকসানার মাথায় কোপানোর ফলে গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে ঢাকার একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। তানজিলা স্থানীয় ক্লিনিকে চিকিৎসা নিয়েছে।

নড়িয়া থানা-পুলিশ সূত্র জানায়, নড়িয়ার ডিঙ্গামানিক ইউনিয়নের কলারগাঁও এলাকার সৌদিপ্রবাসী আফজাল হোসেনের স্ত্রী রোকসানা বেগম। তিনি মেয়েকে নিয়ে ভাড়াবাসায় বসবাস করেন। আজ ভোররাতের দিকে এক দুর্বৃত্ত তাঁদের ঘরে প্রবেশ করে রোকসানা বেগমকে কুপিয়ে আহত করে। এ সময় তাঁর মেয়েকে পিটিয়ে আহত করা হয়। তাঁদের কাছ থেকে ৩২ হাজার টাকার দুটি মুঠোফোন, গলার চেইন ও কানের দুল নিয়ে যায়। তাঁদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে ওই দুর্বৃত্ত পালিয়ে যায়। প্রতিবেশীরা তাঁদের উদ্ধার করে স্থানীয় ঘড়িসার বাজারের একটি ক্লিনিকে নিয়ে যান। রোকসানার মাথার আঘাত গুরুতর হওয়ায় তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়া হয়েছে।

নড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান শরীয়তপুর চোখকে বলেন, ‘এক ব্যক্তি রোকসানার ঘরে প্রবেশ করে তাঁকে কুপিয়েছে। তার মেয়েকে পিটিয়ে আহত করেছে। এরপর টাকা ও গয়না নিয়ে গেছে। কেন, কী উদ্দেশ্যে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে, তা আমরা তদন্ত করছি। এ ঘটনায় এখনো কোনো মামলা করা হয়নি।’