বুধবার, ২২ মে, ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১, ১৩ জিলকদ, ১৪৪৫

একসঙ্গে দুই মেয়ে ও এক ছেলের জন্ম দিলেন লাভনী

 

অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে শরীয়তপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে দুই মেয়ে ও এক ছেলে সন্তানের জন্ম দিয়েছেন লাভনী আক্তার (২২) নামের এক প্রসূতি। গত মঙ্গলবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ১টায় নুর জেনারেল হাসপাতালের গাইনি বিভাগের চিকিৎসক ডা. সৈয়দা শাহিনুর নাজিয়ার তত্ত্বাবধায়নে ওই তিন সন্তানের জন্ম হয়।

লাভনী আক্তার শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার চর রাড়িপাড়া এলাকার মালয়েশিয়া প্রবাসী আক্তার হোসেনের স্ত্রী ও একই এলাকার রায়ের কান্দি গ্রামের জব্বার শেখের মেয়ে। তিন সন্তান এবং মাকে দেখতে হাসপাতালে ভিড় করছেন স্বজনরা।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, দেড় বছর আগে লাভনী আক্তারের বিয়ে হয়। গর্ভকালীন সময়ের ৮ মাস পূর্ণ হলে গত মঙ্গলবার তিনি নিয়মিত চেকআপের জন্য হাসপাতালে আসেন। হাসপাতালের চিকিৎসক তাকে জানায় দ্রুত সময়ের মধ্যে অস্ত্রোপচার করতে হবে।

লাভনী আক্তারের শ্বশুর খলিল খান বলেন, আলহামদুলিল্লাহ একসঙ্গে তিনজনের দাদা হয়েছি। ছেলের বউ ও নাতি-নাতনিরা সুস্থ আছে। শিগগিরই মিলাদ মাহফিল করে নাতি-নাতনিদের নাম রাখা হবে।

লাভনী আক্তার বলেন, নিয়মিত চেকআপের সময় আমি জানতাম আমার দুইটি বাচ্চা হবে। কিন্তু অস্ত্রোপচারের পর তিন বাচ্চার মা হয়েছি। আমার সন্তানরা যেন ভালো মানুষ হিসেবে বড় হয়, সকলের কাছে সেই দোয়া চাই।

হাসপাতালের জেনারেল ম্যানেজার আতিকুর রহমান বলেন, দ্বিতীয়বারের মতো আমাদের হাসপাতালে এক নারী তিন সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। সফলভাবে অস্ত্রোপচার হয়েছে বলে শুকরিয়া আদায় করছি। বাচ্চা ও তাদের মায়ের জন্য দোয়া করি।

ডা. সৈয়দা শাহিনুর নাজিয়া বলেন, লাভনী আক্তারের একসঙ্গে তিনটি বাচ্চা হয়েছে। মা ও বাচ্চারা সুস্থ আছে। চিকিৎসাবিজ্ঞানে একসঙ্গে ৬-৭টি বাচ্চা জন্ম দেওয়ার দৃষ্টান্তও রয়েছে।