বুধবার, ২২ মে, ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১, ১৩ জিলকদ, ১৪৪৫

যে কারণে প্রকাশ্যে শিয়ালের মাংস বিক্রি

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে উপজেলা চৌমুহনীতে প্রকাশ্যে শিয়ালের মাংসকে ঔষধি গুণাগুণসম্পন্ন মাংস হিসেবে আখ্যা দিয়ে বিক্রি করছিলেন আবুল বাশার (৫৫) নামে এক ব্যক্তি। এ ঘটনায় তাকে ৬ মাসের কারাদণ্ড ও এক হাজার টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বুধবার রাতে উপজেলার চৌমুহনী পৌরসভাধীন ব্যাংক রোড এলাকায় এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আসিফ আল জিনাত। দণ্ডিত আবুল বাশার নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার মজেদীপুর গ্রামের মৃত আব্দুর রশিদের ছেলে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, ঔষধি গুণাগুণসম্পন্ন মাংস হিসেবে আখ্যা দিয়ে বুধবার রাতে উপজেলার চৌমুহনী পৌরসভাধীন ব্যাংক রোড এলাকায় প্রকাশ্যে শিয়ালের মাংস বিক্রি করছিলেন আবুল বাশার। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়।

উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আসিফ আল জিনাত বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আবুল বাশার ক্রেতাদের ঠকিয়ে শিয়ালের মাংস বিক্রি করছিলেন। তাই তাকে এই দণ্ড দেওয়া হয়।