বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১, ৬ জিলহজ, ১৪৪৫

বিএনপি একদিন নিষিদ্ধ রাজনৈতিক দলে পরিণত হবে : বিএম মোজাম্মেল হক

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক।বিএনপির প্রতি জনগণের কোনো সমর্থন নেই। বিএনপি নামের এই সন্ত্রাসী দলটি একদিন মানুষের দাবির প্রেক্ষিতে নিষিদ্ধ রাজনৈতিক দলে পরিণত হবে। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান শুধু বঙ্গবন্ধুকেই খুন করে ক্ষ্যান্ত হয়নি। তার প্রতিষ্ঠিত দল বিএনপি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ১৯ বার হত্যা করতে চেয়েছে। হরতাল, অবরোধের নামে এখন নিরপরাধ পুলিশসহ সাধারণ মানুষকে পিটিয়ে আগুন দিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করেছে তারা। 

সোমবার (৬ নভেম্বর) সন্ধ্যায় শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের আয়োজিত শান্তি সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় তিনি বিএনপিকে সন্ত্রাসী দল হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, বিএনপি একটি সন্ত্রাসী রাজনৈতিক দল। কানাডার আদালত একবার দুইবার নয়, ছয় বার রায় দিয়েছেন বিএনপি একটি সন্ত্রাসী রাজনৈতিক দল। এই দলটি এখন আগুন সন্ত্রাস করছে। তারা বাসে আগুন দিয়ে নিরপরাধ মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করছে, দেশের সম্পদ নষ্ট করছে। তারা স্বাধীনতা বিরোধী আল বদর, আল শামস ও যুদ্ধাপরাধী জামায়াতকে লালন পালন করে। এসব করে বলে দেশের মানুষ তাদেরকে সমর্থন করে না।

শরীয়তপুর-১ আসনের সাবেক এমপি বিএম মোজাম্মেল হক আরও বলেন, জামায়াত-বিএনপি শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। একাত্তরের বিদেশি পরাশক্তি আমেরিকা যারা আমাদের মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতা করেছে তারা আজ চোখ রাঙাতে চায়। কিন্তু বাপের বেটি শেখ হাসিনা এসব কিছুতে ভয় পান না। কারণ বাংলাদেশের মানুষ শেখ হাসিনার সঙ্গে আছেন।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ একটি ফুলের বাগান। এই বাগানের ফুলগুলোকে প্রস্ফুটিত হতে দিতে হবে। শেখ হাসিনা এই বাগানের ফুলগুলোকে প্রস্ফুটিত গোলাপের মতো ফুটতে দিতে চান। আওয়ামী লীগের প্রত্যেকটি নেতাকর্মীকে ফুলের মতো প্রস্ফুটিত হয়ে বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাসের জবাব দিতে হবে। কারও চোখ রাঙানিতে ভয় পাওয়া চলবে না।

বিএনপি-জামায়াতের হরতাল অবরোধের নামে অগ্নিসন্ত্রাসের প্রতিবাদে শান্তি সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন, শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আব্দুর রব মুন্সী, জাজিরা উপজেলা চেয়ারম্যান মোবারক আলী শিকদার, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ সভাপতি আব্দুল আলীম বেপারী, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন কোতোয়াল, জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ফেরদৌস খান, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান পাহাড়, জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ইকবাল হোসেন টিপু কোতোয়ালসহ অন্যান্যরা।