বুধবার, ২২ মে, ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১, ১৩ জিলকদ, ১৪৪৫

খাদ্যগুদাম কর্মকর্তার বাসায় মিলল খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির চাল

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলা খাদ্যগুদাম কর্মকর্তার বাসভবন থেকে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১৩ বস্তা চাল জব্দ করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া সেখান থেকে এক হাজার ১০০টি খালি চালের বস্তাও জব্দ করা হয়েছে।

শনিবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলা খাদ্যগুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইকবাল মাহমুদের বাসভবন থেকে এসব জব্দ করা হয় বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আব্দুল্লাহ আল মামুন।

ইকবাল মাহমুদের বাসায় খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির চাল মজুদ রাখা হয়েছে, এমন খবর পেয়ে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। সেখান থেকে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ৩০ কেজির তিন বস্তা ও ৫০ কেজির ১০ বস্তা চাল এবং এক হাজার ১০০টি খালি বস্তা জব্দ করা হয়।

পরে বাসভবনের যে কক্ষে চাল ও বস্তা পাওয়া যায়; সেটি তালাবদ্ধ করে সিলগালা করে দেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী হাকিম ও ইউএনও আব্দুল্লাহ আল মামুন।

এ বিষয়ে জানতে খাদ্যগুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইকবালের সঙ্গে মোবাইল ফোনে একাধিক বার যোগাযোগের চেষ্টা করলে তিনি ফোন ধরেননি।

শরীয়তপুর জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন বলেন, “আমি জেলার বাইরে ছিলাম। এখন শরীয়তপুরে আসছি এবং ভেদরগঞ্জে এক কর্মকর্তার বাসায় চাল থাকার বিষয়টি শুনেছি। খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব।”

ইকবাল মাহমুদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নিতে খাদ্য অধিদপ্তরে প্রতিবেদন পাঠানোর কথা জানিয়েছেন ইউএনও আব্দুল্লাহ আল মামুন।