বুধবার, ২২ মে, ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১, ১৩ জিলকদ, ১৪৪৫

ভেদরগঞ্জে জব্দ চাল সরানোর চেষ্টা সেই গুদাম কর্মকর্তার

 

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জে জব্দ চাল সরানোর সময় ধরা পড়েছেন উপজেলা খাদ্যগুদাম কর্মকর্তা ইকবাল মাহমুদ। রোববার সন্ধ্যায় গুদামে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আব্দুল্লাহ আল মামুন অভিযানে এলে ইকবাল ধরা পড়েন। এ সময় ওই খাদ্যগুদাম কর্মকর্তা তার বাসায় জব্দ চালের বস্তা গ্রিল কেটে সরাচ্ছিলেন।

গ্রিল কাটার মেশিন ও অন্য সরঞ্জাম জব্দ করা হয়। অভিযানকালে উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা ইমামুল হাফিজ নাদিম উপস্থিত ছিলেন। ইউএনওর দাবি, জব্দকৃত আলামত নষ্ট করে বা সরিয়ে নিয়ে উপজেলার প্রশাসনের অভিযানকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে চেয়েছিলেন ইকবাল ও তার সহযোগীরা।

তিনি বলেন, ইকবালের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে কর্তৃপক্ষকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। দুদক আইন মোতাবেক তার বিষয়ে ব্যবস্থা নেবে।

জেলা গুদাম কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন বলেন, ইকবালের এমন কাজে আমরা লজ্জিত। তার বিষয়ে কর্মকর্তারা সিদ্ধান্ত নেবেন। গ্রিল কাটার মিস্ত্রি সজিব মিয়া বলেন, তাকে ডেকে এনে গ্রিল কেটে কয়েক বস্তা চাল সরিয়ে নেন গুদাম কর্মকর্তার সহযোগীরা।

শনিবার ইকবালের বাসা থেকে ১৩ বস্তা চাল ও ১১শ খালি বস্তা জব্দ করা হয়। এ সময় তার বাসভবন সিলগালা করে দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।