বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০২৪, ৩ শ্রাবণ, ১৪৩১, ১১ মহর্‌রম, ১৪৪৬

নৌকার বিজয় মিছিলে ‘স্লোগান নিয়ে’ সংঘর্ষ, কাউন্সিলরসহ আহত ২০

 

শরীয়তপুরে নৌকার প্রার্থীর বিজয় মিছিলে স্লোগান দেওয়া নিয়ে সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

রোববার রাতে শরীয়তপুর সদর পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের চৌরাস্তা এলাকায় এ ঘটনায় পালং মডেল থানায় একটি মামলা হয়েছে বলে ওসি মিসবাহ উদ্দিন আহম্মেদ জানান।

তিনি বলেন, মামলার বাদী ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ফরিদ শেখের ভাই জাকির হোসেন শেখ। তিনি এ ঘটনায় ১৫ জনকে আসামি করেছেন।

৪০ বছর বয়সী ফরিদ শরীয়তপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্যও। তিনিও এ ঘটনায় আহত হয়েছেন।

বাকিরা হলেন- আসলাম হাওলাদার (২০), ইদ্রস সরদার (৪০), সফিক শেখ (৩০), আলামিন মুন্সি (৩০), ইসরাত নক্তী (২০), সাইফুল সদার (২৩), আসিফ সিকদার (৩০), মাসুদ সরদার (২৪), সালাম ঢালী (৩৬), বাবুল খা (২৬) ও শরিফ মুন্সি। বাকিদের নাম-পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

তাদের মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় আসলাম হাওলাদারকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং বাকিদের শরীয়তপুর সদর হাসপতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়দের বরাতে ওসি জানান, রোববার রাতে স্বর্ণঘোষ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে থেকে নৌকার প্রার্থী ইকবাল হোসেন অপুর বিজয় মিছিল বের হয়। এতে নেতৃত্ব দেন অপুর সমর্থক কাউন্সিলর ফরিদ। এ সময় মিছিল থেকে ফরিদের নামে স্লোগান দেওয়া হলে অপুর সমর্থক স্থানীয় আওয়ামী লীগের আরেকপক্ষ নুরুল হক তালুকদার ও সফিক মল্লিক রেগে যান। ফরিদের নামে নয়, শুধুমাত্র অপুর নামে স্লোগান দেওয়ার দাবি করেন তারা।

এর জেরে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে গেলে উভয় পক্ষের অন্তত ২০ জন আহত হন বলে জানান তিনি।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে নুরুল হক তালুকদার ও সফিক মল্লিকের মোবাইলে একাধিকবার ফোন করেও পাওয়া যায়নি।

পূর্ব শত্রুতার জেরে দুপক্ষের মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়েছে বলে ওসি মিসবাহর ভাষ্য।