বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০২৪, ৩ শ্রাবণ, ১৪৩১, ১১ মহর্‌রম, ১৪৪৬

শরীয়তপুরে নিজ চেম্বারে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছিল আইনজীবীর লাশ

মনিরুজ্জামান ইমরান

শরীয়তপুরে ব্যক্তিগত চেম্বার থেকে এক আইনজীবীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

বুধবার রাত ৯টার দিকে জেলা আইনজীবী সমিতি কার্যালয়ের দক্ষিণ পাশের একটি ভবন থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয় বলে পালং মডেল থানার ওসি মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ জানান।

নিহত মনিরুজ্জামান ইমরান (৫৫) জাজিরা উপজেলার মুলনা ইউনিয়নের কাউয়াদি এলাকার শাজাহান মাদবরের ছেলে। তিনি জেলা জজ কোর্টের আইনজীবী ছিলেন।

তার সহকারী ও পরিবার জানায়, বেশ কিছুদিন ধরে শারীরিকভাবে অসুস্থ ছিলেন মনিরুজ্জামান ইমরান। বুধবার সন্ধ্যায় বাসা থেকে বের হয়ে ব্যক্তিগত চেম্বার সময় কাটাচ্ছিলেন তিনি।

রাত সাড়ে ৮টার দিকে চেম্বারে গিয়ে ভেতর থেকে দরজা বন্ধ দেখতে পান ইরমানের সহকারী শহিদুল ইসলাম।

শহিদুল বলেন, “স্যার কিছুদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। রাতে আমি চেম্বারে গিয়ে ভেতর থেকে দরজা বন্ধ দেখতে পাই। পরে বিষয়টি আমি অন্য আইনজীবীদের জানাই ও লোকজন ডাক দিই। একজনকে দরজার উপর দিয়ে রুমের ভেতরে পাঠালে স্যারকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে থাকতে দেখে চিৎকার দেন। পরে তিনি ভেতর থেকে দরজা খুলে দিলে আমরা সবাই ঢুকি।”

বিষয়টি পুলিশকে জানালে তারা এসে মরদেহ উদ্ধার করেন।

নিহতের ছোট বোন জোসনা বেগম বলেন, “ভাইয়া ভেবেছিলেন, তার ডিমেনশিয়া রোগ ধরা পড়েছে। এরপর থেকেই তিনি চুপচাপ থাকতেন। আজ যে উনি এভাবে সুইসাইড করবেন, তা ভাবতে পারছি না।”

ওসি মেজবাহ উদ্দিন বলেন, “মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে