শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০২৪, ৭ বৈশাখ, ১৪৩১, ১০ শাওয়াল, ১৪৪৫

তুরস্কে যাচ্ছে বাংলাদেশের উদ্ধারকারী দল

ভয়াবহ ভূমিকম্পে বিপর্যস্ত তুরস্কে উদ্ধারকারী দল পাঠাতে যাচ্ছে বাংলাদেশ, সেই সঙ্গে একটি চিকিৎসক দলও পাঠানোর কথা ভাবা হচ্ছে।

এই দুটি দল পাঠানোর প্রক্রিয়া চূড়ান্তের কাজ চলার কথা মঙ্গলবার জানিয়েছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সেহেলী সাবরীন।

তিনি দুপুরে সাংবাদিকদের বলেন, “ভূমিকম্পে বিধ্বস্ত তুরস্কে উদ্ধার কাজে অংশ নিতে উদ্ধারকারী দল পাঠানোর কথা ভাবা হচ্ছে। সেই সঙ্গে জরুরি চিকিৎসা সেবা দল পাঠানোর পরিকল্পনাও করা হচ্ছে ।”

তবে এ বিষয়ে এখনও চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানান তিনি।

এক প্রশ্নে সাবরীন বলেন, প্রাথমিকভাবে ১০ জনের দল পাঠানোর সিদ্ধান্ত হতে পারে। দলে কারা থাকবেন, কী সরঞ্জাম, উপকরণ ও চিকিৎসা সামগ্রী পাঠানো হবে, সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে কাজ চলছে।

এদিকে তুরস্কে পাঠানোর জন্য একটি দল চূড়ান্ত করেছে ফায়ার সার্ভিস।

মঙ্গলবার বিকালে ফায়ার সার্ভিসের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ থেকে পাঠানো সম্মিলিত সাহায্যকারী দলের সাথে পাঠানোর জন্য ফায়ার সার্ভিসের ১২ সদস্যের এই উদ্ধারকারী দল প্রস্তুত করা হয়েছে।”

এ দলের সদস্য হিসেবে যারা যাচ্ছেন, তারা ইন্টারন্যাশনাল সার্চ অ্যান্ড রেসকিউ অ্যাডভাইজারি গ্রুপের স্ট্যান্ডার্ড অনুযায়ী বিধ্বস্ত ভবনে অনুসন্ধান ও উদ্ধার কাজ পরিচালনার বিষয়ে আন্তর্জাতিক মানের প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

সোমবার ভোররাতে ৭ দশমিক ৮ মাত্রার ভূমিকম্পে তুরস্ক ও প্রতিবেশী সিরিয়ায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। এতে বহু অ্যাপার্টমেন্ট ব্লক ধসে পড়ে, হাসপাতাল ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

ভূমিকম্পে মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত তুরস্ক ও সিরিয়ায় নিহতের সংখ্যা ৫০০০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। মৃতের সংখ্যা ক্রমান্বয়েই বাড়ছে।

সোমবার তুরস্ক ও সিরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের লেখা পৃথক শোক বার্তায় সহায়তার প্রয়োজন হলে পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাস দেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

তুরস্কের মানুষের জন্য শোক ও সমবেদনা জানানোয় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন ঢাকায় তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মোস্তফা ওসমান তুরান।