শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০২৪, ৭ বৈশাখ, ১৪৩১, ১০ শাওয়াল, ১৪৪৫

বিয়ে-বউ নিয়ে শাকিবকে ‘খোঁচা’ দিলেন আফরান নিশো!

এবার ঈদে পাঁচটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে প্রেক্ষাগৃহে। এর মধ্যে রয়েছে ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা আফরান নিশোর ‘সুড়ঙ্গ’ সিনেমা। মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা নিয়ে সুস্থ প্রতিযোগিতার কথা ছিল। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে সরাসরি না হলেও নাম উল্লেখ না করে নানা মন্তব্য ভেসে বেড়াচ্ছে।

পরিচালক কিংবা অভিনয়শিল্পীর নাম উল্লেখ করে কেউ মন্তব্য না করলেও ভোক্ত-শুভাকাঙ্ক্ষীদের মধ্যে তর্ক-বিতর্ক চলছেই। একই সঙ্গে নোংরা কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি তো রয়েছেই।

এসবের মধ্যেই দুই সিনেমার টিম থেকে বিপরীতমুখী অভিযোগ উঠে এলো। সোমবার বিকালে স্টার সিনেপ্লেক্সের মহাখালী শাখায় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলে ‘সুড়ঙ্গ’ টিম।

এ সময় সিনেমার পাইরেসি সংক্রান্ত ব্যাপারে কথা বলার জন্য একত্র হয়েছিলেন ‘সুড়ঙ্গ’ টিম। কিন্তু সেখানে আলাপচারিতায় একপর্যায়ে অন্যান্য বিষয়ও উঠে আসে।

এদিকে নিশোকে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন, নিজের প্রথম সিনেমা এবং ঈদ উৎসবে শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী থাকার কারণে কোনো চাপ অনুভব করেছেন কিনা। জবাবে এই অভিনেতা বলেন, চাপ তো কোনো সময় ছিল না। শুটিংয়ের সময় ছিল। আর কিসের চাপ? বয়স হয়ে গেছে চল্লিশের উপরে। অনেক দিন ধরে তো কাজ করছি।

অভিনেতার এই বক্তব্য শেষ হতেই একজন বলেন, বয়সটা তাহলে বলে দিলেন। আর ঠিক তখনই ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য করেন নিশো। অনেকটা এভাবে তিনি বলেন, বয়স বলতে আমার তো সমস্যা নেই। আমি তো সো কল্ড ওই হিরো না যে, বিয়ে করে বউয়ের কথা বলব না, বাচ্চার কথা বলব না।

তবে ছোটপর্দার এই জাত অভিনেতা তাৎক্ষণিক বিষয়টি সামলে নেন। বলেন, এসব ধারণা অনেক আগে ছিল যে, তোমরা যারা নায়ক তারা বের হয়ে মানুষের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎ কর না, বেশি এক্সক্লুসিভ থাক।

তিনি আরও বলেন, কিন্তু আমরা যারা ছোটপর্দায় কাজ করেছি, আমাদের অনেক বেশি উৎসাহ-অনুপ্রেরণা দিয়েছে ভক্তরা। তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করা, সহজ হওয়া, কথা বলা—এসব ভদ্রতা ও আন্তরিকতা।

প্রসঙ্গত, রায়হান রাফির পরিচালনায় ‘সুড়ঙ্গ’ সিনেমায় নিশোর সঙ্গে অভিনয় করেছেন তমা মির্জা।