শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১১ ফাল্গুন, ১৪৩০, ১৩ শাবান, ১৪৪৫

আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় স্বতন্ত্র প্রার্থী খালেদ শওকতকে শোকজ

 

আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় আওয়ামী যুবলীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ডা. খালেদ শওকত আলীকে শোকজ করেছে নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটি। তিনি শরীয়তপুর-২ (নড়িয়া-সখিপুর) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী (ঈগল)। আগামী ২১ ডিসেম্বরের মধ্যে তাকে নোটিশের জবাব দিতে হবে।

শরীয়তপুর-২ আসনের নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান ও নড়িয়ার সিনিয়র সহকারী জজ মো. আরিফুল ইসলাম আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে লিখিত ব্যাখ্যা চেয়ে ডা. খালেদ শওকত আলীকে এ নোটিশ প্রদান করেন।

নোটিশে দেখা যায়, শরীয়তপুর-২ আসনের আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী এ কে এম এনামুল হক শামীমের নির্বাচন পরিচালনার প্রধান সমন্বয়কারী অ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ স্বতন্ত্র প্রার্থী ডা. খালেদ শওকত আলীর বিরুদ্ধে নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।
অভিযোগের সূত্র ধরে নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটি রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীর আচরণ বিধিমালা-২০০৮ এর বিধান লঙ্ঘন বিষয়ে লিখিত ব্যাখ্যা চেয়ে নোটিশ দিয়েছে তাকে। নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে, ডা. খালেদ শওকত আলী গত ১২ ডিসেম্বর রাতে ঢাকা থেকে নিজ বাড়িতে এসে বহু লোকের জমায়েত করে মিছিল নিয়ে মাজেদা হাসপাতাল হয়ে ব্রাক অফিসের সামনে গিয়ে উসকানিমূলক বক্তব্য দিয়েছেন। এ ছাড়াও ডা. খালেদ শওকত আলী ভোট গ্রহণের তিন সপ্তাহ আগে থেকে ঈগল প্রতীক নিয়ে শত শত লোক সমাগম করে স্লোগান দিয়েছেন। যা জাতীয় সংসদ নির্বাচনী আচরণ বিধিমালার ১২ অনুচ্ছেদের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।

নির্বাচন আচরণ বিধিমালা লঙ্ঘনের বিষয়ে আগামী ২১ ডিসেম্বর সকাল ৯টার মধ্যে শরীয়তপুর-২ আসনের নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান মো. আরিফুল ইসলামের কার্যালয়ে সশরীরে হাজির হয়ে বা প্রতিনিধির মাধ্যমে ডা. খালেদ শওকত আলীকে লিখিত ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে।