শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১০ ফাল্গুন, ১৪৩০, ১২ শাবান, ১৪৪৫

মেট্রোরেল চলবে রাত ৮টা পর্যন্ত

মতিঝিল পর্যন্ত মেট্রোরেল চলাচলের সময় বাড়ল। আগামীকাল শনিবার থেকে উত্তরা থেকে সকাল ৭টা ১০টা মিনিটে প্রথম ট্রেন ছাড়বে। অপরদিকে মতিঝিল থেকে রাত ৮টা ৪০ মিনিটে সর্বশেষ ট্রেন ছেড়ে উত্তরা যাবে।

এ সময়ে শুধু এমআরটি ও র‌্যাপিড পাশধারীরা যাতায়াত করতে পারবেন। আর কাউন্টার থেকে সাধারণ টিকিট কিনে যাত্রীরা সকাল ৭টা ৩০ মিনিট থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত চলাচল করতে পারবেন। বর্তমানে মতিঝিলে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত ট্রেন চলাচল করছে।

বৃহস্পতিবার বিকালে রাজধানীর ইস্কাটনে প্রবাসী কল্যাণ ভবনে নিজস্ব কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে মেট্রোরেলের নতুন সময়সূচি ঘোষণা করেন ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের (ডিএমটিসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক এমএএন ছিদ্দিক।

তিনি বলেন, উত্তরা উত্তর থেকে আগারগাঁও অংশে মেট্রোরেল যেভাবে চলাচল করছে, সেভাবে উত্তরা উত্তর থেকে মতিঝিল পর্যন্ত চলাচল করবে। শনিবার থেকে প্রথম মেট্রোরেল উত্তরা উত্তর থেকে সকাল ৭টা ১০ মিনিটে ছাড়বে। সারা দিন চলবে। সর্বশেষ ট্রেন রাত ৮টা ৪০ মিনিটে মতিঝিল থেকে ছাড়বে। আসার সময়ও স্বাভাবিকভাবে প্রতিটি স্টেশনে থামবে। সেটি ছাড়ার পর ৩৩ মিনিট ৬ সেকেন্ডে উত্তরা উত্তরে আসবে। সাপ্তাহিক বন্ধের দিন শুক্রবার মেট্রোরেল চলবে না।

ডিএমটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এমএএন ছিদ্দিক বলেন, আমাদের পরিকল্পনা ছিল মার্চের মধ্যে আগারগাঁও অংশের সঙ্গে মতিঝিল অংশের সমন্বয় করে সময় বাড়ানো। কিন্তু যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে আমরা জেনেছি তাদের দাবি কী। তাদের সেই চাওয়া অনুযায়ী মেট্রোরেলের সময় বাড়ানো হচ্ছে।

তিনি জানান, সকাল ৭টা থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত এবং বিকাল ৪টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেট্রোরেল চলাচলের পিক আওয়ার। এ সময়ে আটটি ট্রেন যাত্রী সেবায় নিয়োজিত থাকবে। পিক আওয়ারে স্টেশন থেকে প্রতি ১০ মিনিট পরপর ট্রেন পাওয়া যাবে। অন্যদিকে অফ পিক আওয়ারে (বেলা সাড়ে ১১টা থেকে বিকাল ৪টা) ট্রেন চলবে সাতটি। প্রতি ১২ মিনিট পরপর স্টেশনে ট্রেন পাওয়া যাবে।

এমএএন ছিদ্দিক বলেন, রাত ৮টার পর চারটি ট্রেন মতিঝিল স্টেশন থেকে যাত্রা শুরু করে প্রতিটি স্টেশনে থেমে উত্তরা উত্তর পর্যন্ত যাবে। রাত ৮টা ১০ মিনিট, ৮টা ২০ মিনিট ও ৮টা ৩০ মিনিট ও ৮টা ৪০ মিনিটে ছেড়ে যাওয়া ট্রেনগুলোতে শুধু এমআরটি পাশধারী যাত্রীরা ভ্রমণ করতে পারবেন।

মেট্রোরেলের প্রতিটি স্টেশনে এমআরটি পাশ ক্রয় ও ‘টপ-আপ’ করার ব্যবস্থা রয়েছে। ২০২২ সালের ২৮ ডিসেম্বর মেট্রোরেলের উত্তরা থেকে আগারগাঁও অংশ উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর আগারগাঁও থেকে মতিঝিল অংশ গত বছর ৪ নভেম্বর উদ্বোধন করা হয়। গত বছরের শেষ দিন উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত ১৬টি স্টেশনের সব খুলে দেওয়া হয়।