বুধবার, ২২ মে, ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১, ১৩ জিলকদ, ১৪৪৫

যাবজ্জীবন সাজাভোগ শেষে এক ব্যক্তির কারাগারে থাকার বৈধতা নিয়ে রিট

শরীয়তপুরের গোসাইরহাট এলাকার মো. আলাউদ্দিন ওরফে কামাল ওরফে নূরে আলম নামের এক ব্যক্তি একটি হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজাভোগ শেষেও কারাগারে আছেন উল্লেখ করে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়েছে। আলাউদ্দিনকে বেআইনিভাবে আটক রাখা হয়নি, তা নিশ্চিতে কেন তাঁকে আদালতে হাজির করা হবে না, এ বিষয়ে রুল দেওয়ার আরজিসহ তাঁকে মুক্তি দিতে নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে রিটে।

পরে রিট আবেদনকারীর আইনজীবী বিভূতি তরফদার বলেন, একটি হত্যা মামলায় ১৯৯৩ সালের ২৭ জানুয়ারি গ্রেপ্তার হন আলাউদ্দিন। ওই মামলায় ২০০১ সালের ১ ডিসেম্বর বিচারিক আদালতের দেওয়া রায়ে আলাউদ্দিনসহ কয়েক আসামির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড হয়। অন্য আসামিরা হাইকোর্টে আপিল করে ২০০৭ সালে খালাস পান। তবে আলাউদ্দিন আপিল করেননি।

১৯৯৩ সাল থেকে কারাগারে থাকা আলাউদ্দিনের সাজাভোগ শেষ হওয়া সত্ত্বেও কারাগারে আছেন জানতে পেরে রিটটি করা হয়। বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের ও বিচারপতি মোহাম্মদ শওকত আলী চৌধুরীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ রিটটি দাখিল করা হয়েছে। আদালত রিটের ওপর শুনানির জন্য আগামী ১ জুন দিন রেখেছেন।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. আনোয়ার হোসেন আবেদনকারী হয়ে ওই রিট করেন। রিটে স্বরাষ্ট্রসচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক ও বরিশাল কারাগারের জেলারকে বিবাদী করা হয়েছে।